ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
সদস্য হোন |  আমাদের জানুন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
সোমবার ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ১৬ মাঘ ১৪২৯
স্তন্যদানের সময় খুলে এল বৃন্ত! দাবি টিকটক তারকার, আদৌ কি সম্ভব?
নতুন সময় ডেস্ক
প্রকাশ: Monday, 23 January, 2023, 12:33 PM

স্তন্যদানের সময় খুলে এল বৃন্ত! দাবি টিকটক তারকার, আদৌ কি সম্ভব?

স্তন্যদানের সময় খুলে এল বৃন্ত! দাবি টিকটক তারকার, আদৌ কি সম্ভব?

একরত্তি ছেলের কামড়ে স্তনবৃন্ত খুলে এসেছে বলে দাবি টিকটক তারকার। টিকটকে পরিবারকেন্দ্রিক নানা ভিডিয়ো পোস্ট করে তিনি জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন। তাঁর ১ কোটি ৬৪ লক্ষ ফলোয়ার রয়েছে।

স্তন্যদানের সময় স্তনবৃন্ত খুলে বেরিয়ে এসেছে, এমনই দাবি করলেন টিকটক তারকা জ্যাসমিন চিসওয়েল। টিকটকে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে তিনি জানিয়েছেন, তাঁর এক বছর বয়সি ছেলেকে স্তন্যপান করানোর সময় স্তনবৃন্ত খুলে এসেছে।

এমনটাই দাবি জ্যাসমিনের। টিকটকের দুনিয়ায় তিনি যথেষ্ট পরিচিত নাম। পরিবারকেন্দ্রিক নানা ভিডিয়ো পোস্ট করে জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন। টিকটকে তাঁর ১ কোটি ৬৪ লক্ষ ফলোয়ার। তাঁদের সামনে জ্যাসমিন জানিয়েছেন, এক বছরের ছেলেকে স্তন্যপান করানোর সময় অঘটনের কথা। সেই সঙ্গে তিনি এ-ও জানান, বৃন্ত খুলে আসতে দেখে তিনি হতবাক হয়ে গিয়েছেন। এমনটা যে হতে পারে, তা ভাবতে পারেননি জ্যাসমিন।

এর আগে আর এক টিকটক তারকা ব্রুক অনুরূপ দাবি করেছিলেন। তিনিও জানিয়েছিলেন, সদ্যোজাত শিশুপুত্রকে স্তন্যপান করাতে গিয়ে বিপাকে পড়তে হয়েছিল তাঁকে। তাঁর স্তনবৃন্তে রক্ত সঞ্চালনা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। কালো হয়ে এসেছিল বৃন্তের ডগা। চিকিৎসকের পরামর্শে ফের সুস্থ হয়েছেন বলে জানান ব্রুক।

কিন্তু টিকটক তারকাদের এই দাবি কি আদৌ সত্যি? আদৌ কি শিশুকে স্তন্যপান করানোর সময় মায়ের স্তনবৃন্ত খুলে আসতে পারে?

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, স্তন্যপানের সময় কামড় দেওয়া শিশুর শারীরিক গঠন অনুযায়ী অসম্ভব। স্তন্যপান করা শেষ হলে মায়ের স্তনবৃন্তে তারা কামড়াতে পারে। জোরে কামড়ালে বৃন্তের ক্ষতি হতে পারে। আঘাতে ক্ষত তৈরি হতে পারে। কিন্তু কখনওই তা খুলে আসা সম্ভব নয়।

সদ্য যাঁরা মা হয়েছেন, তাঁদের শিশুকে স্তন্যপান করানোর সময় কামড় নিয়ে অযথা আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই বলেও জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে শিশুর কামড়ে স্তনবৃন্তে চোট লাগলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে বলা হয়েছে। কোনও কারণে স্তনবৃন্ত সম্পূর্ণ খুলে এলে, তা স্বাভাবিক চামড়ার মতো আবার গজিয়ে উঠতে পারে না। তাই স্তনের যত্ন নেওয়া প্রয়োজন।

পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, ২৫/১ পল্লবী, মিরপুর ১২, ঢাকা- ১২১৬
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: newsnotunsomoy@gmail.com
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status