ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
ই-পেপার |  সদস্য হোন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
শুক্রবার ২৪ মে ২০২৪ ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
বিয়ের পরে হারিয়েছে প্রেম, স্বামী তো ফিরেও তাকায় না, এখন অন্য এক পুরুষের সঙ্গে আলাপ জমিয়েছি
নতুন সময় ডেস্ক
প্রকাশ: Wednesday, 8 May, 2024, 3:53 PM

বিয়ের পরে হারিয়েছে প্রেম, স্বামী তো ফিরেও তাকায় না, এখন অন্য এক পুরুষের সঙ্গে আলাপ জমিয়েছি

বিয়ের পরে হারিয়েছে প্রেম, স্বামী তো ফিরেও তাকায় না, এখন অন্য এক পুরুষের সঙ্গে আলাপ জমিয়েছি

সম্পর্কে উষ্ণতা অটুট রাখতে স্বামী-স্ত্রী দুজনেরই ভূমিকা থাকে। কিন্তু এক পক্ষই যদি শুধু চেষ্টা চালান এবং অপর পক্ষ নীরব থাকেন, তাহলে কি আর সম্পর্ক ঠিক থাকে? এই তরুণীর জীবনেও একই ঘটনা ঘটেছে। তিনি বাধ্য হয়ে মনের সব কথা লিখে পাঠালেন, যা পড়লে চোখে জল আসবে আপনারও।

সম্পর্ক ভালো রাখতে এবং দম্পতির মধ্য়ে উষ্ণতা অটুট রাখতে দুই সঙ্গীকেই সমান ভাবে চেষ্টা চালাতে হয়। কিন্তু সব সময়ে যদি এক পক্ষই চেষ্টা চালিয়ে যান এবং অপরজন কোনওভাবেই এফর্ট না দিতে চান, তাহলে কি আর সম্পর্কের পথ মসৃণ থাকে? আর আমাদের জীবনেও একই ঘটনা ঘটছে। আমার স্বামীকে বারবার বুঝিয়েও কোনও লাভ হয়নি। তাই আজকাল খুব কষ্ট লাগে। এদিকে আমি এতটাই মুখচোরা যে কাউকে মনের কথা খুলে বলতে পারি না। তাই বাধ্য হয়ে সব কথা লিখে পাঠালাম, হয়তো এতেই আমার মনের ভার হালকা হবে।



আমাদের অনেক বছরের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ভালোবাসার মানুষের সঙ্গে সাত পাক ঘুরে এক ছাদের তলায় অনেক দিন সংসার করছি। আমাদের মধ্য়ে তেমন কোনও সমস্যা সত্যিই নেই। ও আমার খুবই ভালো বন্ধু। কিন্তু বিয়ের পরে সেই প্রেমিক মানুষটিকে যেন আমি হারিয়ে ফেলেছি। বিয়ের আগে আমাদের সম্পর্কে যে উষ্ণতা ছিল, আজ সেই অনুভূতিকে চাইলেও ছুঁতে পারি না। তখন খুবই কষ্ট হয়।

ও আমার ভালো বন্ধু
আমরা দুজনেই চাকরি করি। নিজেদের কাজ নিয়ে যথেষ্ট ব্যস্তও থাকি। আর একে অপরকে স্পেস দিতেও ভুলে যাই না। আমাদের সম্পর্কে সমঝোতার কোনও স্থান নেই। তাছাড়া আমি যখনই কোনও কঠিন পরিস্থিতিতে পড়ি, সে আমার পাশে থাকে। আমাকে সম্পূর্ণ সাপোর্ট করে। এমনকী ওর মধ্যে কোনও জেলাসিও আমি দেখি না।

আমার দিকে ফিরেও তাকায় না স্বামী
সম্পর্কটা কোনওদিন টক্সিক ছিল না। কিন্তু ইদানীং যেন আর কিছু ঠিক নেই। জানি না ওর মনে এই নিয়ে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে কিনা, আমি কিন্তু বিপদের ধারণা করতে পারছি। তাই প্রতিটা মুহূর্তে খুব একা লাগে।

অফিস থেকে বাড়ি ফেরার পরে আমার স্বামী নিজের কাজ নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ে। একবার আমার দিকে ফিরে তাকানোর কথাও ভাবে না। আমি প্রথম প্রথম এই নিয়ে অভিযোগ করলেও এখন চুপ করে গিয়েছি।

নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছি
আমি প্রথমে ওর সঙ্গে এই বিষয়টা নিয়ে কথা বলার চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু ও আমার কোনও কথার উত্তরই দেয়নি। এমনকী আমার কথাকে পাত্তা না দিয়ে নিজের কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। ওর এই ব্যবহারটা দেখে খুবই খারাপ লেগেছিল। তবু মনের কথা উজার করে বলতে পারিনি।

ওর এই ব্যবহার যখন দেখি, ঠিক তখনই আমার মন খারাপ লাগে। মনে হয় বিয়ে করে আসলে আমার প্রেমিককেই আমি হারিয়ে ফেলেছি। তবে ওকে বারবার এই কথা বলেও যখন লাভ হয়নি, তখন নিজেকে গুটিয়ে নেওয়া ছাড়া আর কোনও পথ দেখতে পাইনি।


এক ব্যক্তিকে ভালো লাগে
ইদানীং সোশ্যাল মিডিয়ায় এক ব্যক্তির সঙ্গে আমার কথা হয়। সারাদিন অফিসে কাজের চাপ নেওয়ার পরে যখন ভিড় বাসে বাড়ি ফিরি, তখন ওর মেসেজ আসে। আমি ঠিকঠাক বাড়ি পৌঁছেছি কিনা, সেই খবর ও নেয়। আর তার মেসেজটা পাওয়ার পরেই আমার ঠোঁটের কোণায় হাসির রেখা ফুটে ওঠে। ঠিক যেভাবে আমার স্বামী বিয়ের আগে খোঁজ নিত, ঠিক সেভাবেই আজ সেই মানুষটিও আমার খোঁজ নেয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাপ হওয়া সেই ব্যক্তির সঙ্গে আমার কোনওদিন দেখা হয়নি। হয়তো কখনও আমাদের দেখা হবে না। কিন্তু ওর সঙ্গে টুকরো টুকরো কিছু কথোপকথন সারাক্ষণ আমাকে মোহিত করে রাখে।

আমি নতুন কোনও ছবি সোশ্যালে আপ্লোড করলে সে আমাকে ব্যক্তিগত বার্তা পাঠায়। ওর মেসেজ পড়ে বুঝতে পারি যে, আমার ছবি সে নিখুঁতভাবে দেখেছে! আর ওর এই কথাগুলো খুবই ভালো লাগে।

জানি না এভাবে কতদিন চলবে। এও জানি না যে আমি কোনও ভুল করছি কিনা। তবে নিজেকে ভালো রাখার জন্যে এর থেকে ভালো পথ আর কোনও কিছুই মেলেনি।





� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: [email protected]
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status