ই-পেপার সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২
সদস্য হোন |  আমাদের জানুন |  পডকাস্ট |  গুগলী |  ডিসকাউন্ট শপ
বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ ৫ বৈশাখ ১৪৩১
আমার আড়ালে দিনের পর দিন পরকীয়ায় মত্ত ছিল স্বামী, এখন ক্ষমা চাইছে, কী করা উচিত?
নতুন সময় ডেস্ক
প্রকাশ: Monday, 17 April, 2023, 10:18 AM

আমার আড়ালে দিনের পর দিন পরকীয়ায় মত্ত ছিল স্বামী, এখন ক্ষমা চাইছে, কী করা উচিত?

আমার আড়ালে দিনের পর দিন পরকীয়ায় মত্ত ছিল স্বামী, এখন ক্ষমা চাইছে, কী করা উচিত?

এই মহিলার স্বামী দিনের পর দিন তাঁর সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। কিন্তু আজ সম্পর্কে সব সমস্যা মিটিয়ে নিতে চাইছেন। কী করবেন সেই মহিলা? বিশেষজ্ঞের পরামর্শ কী।
 
Cheating Husband Signs: প্রশ্ন: সম্পর্কের ভিত মজবুত হয় বিশ্বাস এবং ভালোবাসায়। এই কথা আমি যেমন বিশ্বাস করি, সঙ্গীরও কি তাই করা উচিত নয়? আমার মনে হয়, ও কোনওদিন বিশ্বাস শব্দটির অর্থই বোঝেনি। তাই ওর কাছে এসব কিছুর কোনও গুরুত্ব ছিল না। আজও হয়তো নেই। কিন্তু আমার স্বামী আমাদের সম্পর্কটাকে আবার ঠিক করতে চাইছেন।

আমি বুঝতে পারছি না কী করব। একদিন আমার পায়ের তলা থেকে মাটি সরে গিয়েছিল। অনেক কষ্টে নিজেকে সামলেছিলাম। আজ সব কথা আমি বিশেষজ্ঞের কাছে লিখে পাঠাচ্ছি। অনুগ্রহ করে আমার কথাগুলো পড়ুন।

প্রথমে কিছু বুঝতে পারিনি

আমার স্বামীর সঙ্গে সুখে সংসার করছিলাম। খুব ভালো দিন কাটছিল আমাদের। ওকে আমি খুবই ভালোবাসতাম। কোনওদিন অবিশ্বাস করিনি।

আমি কিছু টেরই পাইনি যে, আমার আড়ালে সম্পর্কটায় একটু একটু করে চিড় ধরেছে। বুঝতেও পারিনি। এত ভরসা করতাম ওকে! একদিন আমার সেই বিশ্বাস ভাঙে। আমি ধীরে ধীরে বুঝতে পারি যে, কিছুই আর আগের মতো নেই।


তারপর জানতে পারি

আমি বুঝতে পেরেছিলাম যে, আমার স্বামী অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছে। আমি খুব কষ্ট পেয়েছিলাম। কিন্তু ওকে কিছু বুঝতে দিইনি। ধীরে ধীরে আমার কাছে সবই স্পষ্ট হয়ে যায়। তাও আমি চুপ করেছিলাম। একদিন ও নিজেই আমাকে সব কথা জানাল।

আমি কিচ্ছু বলিনি সেদিনও। পরে আমাদের মধ্য়ে এই নিয়ে অনেক আলোচনা হয়। এখন ও সব কিছু ঠিক করার চেষ্টা করছে। সম্পর্কটাতে আবার সঠিক রাস্তায় আনতে চাইছে। কিন্তু আমি আর ওকে ভরসা করতে পারছি না। আমি বুঝতে পারছি না যে, আমার কি ওকে ক্ষমা করে আবার সব ঠিক করে নেওয়া উচিত? বিশেষজ্ঞ আমাকে সাহায্য করুন।

বিশেষজ্ঞের পরামর্শ

পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসক রচনা খান্না সিং- আজকাল এই ঘটনা খুবই সাধারণ। আপনাকে কড়া থাকতে হবে। একটি সীমারেখা টানুন। স্বামীকে স্পষ্ট বুঝিয়ে দিন যে, কী গ্রহণযোগ্য এবং কোনটি গ্রহণযোগ্য নয়।

নানারকম ভাবে সঙ্গীর সঙ্গে প্রতারণা করা যায়। অনুভূতিকে আঘাত করা যায়। অন্যের সঙ্গে শারীরিকভাবে ঘনিষ্ঠ হওয়াটাও প্রতারণা। এমনকী, ডিজিটাল দুনিয়াতেও প্রতারণা করা যেতেই পারে। প্রতারিত হওয়ার পরে সত্য়িই খুব মনখারাপ হয়। বিশ্বাস একদম ভেঙে যায়।


কারণটি খুঁজে বের করার চেষ্টা করুন

আপনাদের মধ্য়ে সম্পর্ক কি খুব মজবুত? আপনার সঙ্গী যদি তবে আরও একটি সুযোগ চান, তাহলে কোনও ক্ষতি নেই।

কিন্তু তিনি কেন আপনাকে ঠকালেন, তা আপনার কাছে স্পষ্ট থাকা উচিত। সেই কারণটি খুঁজে বের করা দরকার। সম্পর্কে যদি কোনও ফাঁক থেকে যায়, তবে সেটিকেও পূরণ করার দায়িত্ব আপনাদেরই।

সঙ্গীকে বিশ্বাস করতে পারবেন?

সঙ্গীকে আবার বিশ্বাস করা খুবই সহজ নয়। একটু সময় দিন। ছোট ছোট পদক্ষেপ করুন। কেন আপনার সঙ্গী সবকিছু ঠিক করতে চাইছেন? সেই কারণটাও খুঁজে বের করার দায়িত্ব আপনার। শুধুই কি পরিস্থিতি সামাল দিতে চাইছেন নাকি তিনি আপনাকে সত্যিই খুব ভালোবাসেন? আমাদের এটা বোঝা দরকার।
আপনাকেই এই বিষয়টি বুঝতে হবে। প্রয়োজনে আপনি কোনও থেরাপিস্টের সাহায্য নিতে পারেন। আপনাদের সম্পর্কে কোথায় ফাঁক ছিল, কেন তিনি এমন করলেন, সব কিছুই আপনাদের দুজনের মধ্য়ে স্পষ্ট থাকা দরকার। বিশেষজ্ঞের সাহায্য নিয়ে আপনি পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, গ্রীন ট্রেড পয়েন্ট, ৭ বীর উত্তম এ কে খন্দকার রোড, মহাখালী বা/এ, ঢাকা ১২১২।
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: info@notunshomoy.com
কপিরাইট © দৈনিক নতুন সময় সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft
DMCA.com Protection Status