শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, 2০২1
নতুন সময় প্রতিনিধি
Published : Thursday, 5 August, 2021 at 9:05 PM
১০ বছরের শিশুকন্যার গলায় ছুরি চালালেন মা

১০ বছরের শিশুকন্যার গলায় ছুরি চালালেন মা

তুচ্ছ ঘটনায় আঁখি নামের ১০ বছরের শিশুকন্যার গলায় ছুরি চালানোর অভিযোগ উঠেছে ‘বদমেজাজি’ এক মায়ের বিরুদ্ধে। আহত আঁখিকে রক্তাক্ত অবস্থায় হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ নিয়ে অভিযুক্ত মা আফছেরী বেগমের (৩০) বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় অভিযোগ করেছেন শিশুটির বাবা আহম্মদ আলী। এর আগে বুধবার সকালে উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের বারদুনিয়া এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।
 
হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য-কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন শিশুকন্যা আঁখি জানায়, তার চুলগুলোতে একটু কোঁকড়ানো। তাই বুধবার সকালে চুলে পানিয়ে দিয়ে চিরুনি করেছিল সে। এতে তার মা আফছারী বেগম প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয়ে মারধর করে। একপর্যায়ে বাড়ির তরকারি কাটার ছুরি দিয়ে আঁখির গলা কেটে দেয়। ফলে গলা দিয়ে রক্ত বের হতে থাকলে তার বাবা আহম্মদ আলীসহ আশপাশের লোকজন এসে আঁখিকে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

আঁখির বাবা আহম্মদ আলী বলেন, আমার স্ত্রী খুবই বদমেজাজি। আঁখির বয়স যখন দুই-আড়াই বছর তখন একদিন রাগের বশে আঁখিকে পুকুরের পানিতে ফেলে দিয়েছিল আফছেরী। এবার যেভাবে গলায় ছুরি চালালো তাতে করে আমার সন্তান যদি খুন হতো! তাহলে কোথায় পেতাম আমার সন্তানকে? বলতে বলতে কান্নায় ভেঙে পড়েন আহম্মদ আলী।

কিছুক্ষণ পর কান্না থামিয়ে বলেন, এভাবে চলতে থাকলে আমাদের পরিবারের কেউ তার (আফছেরী বেগম) কাছে নিরাপদ নয়। সে কারণে ন্যায়বিচার পাওয়ার জন্য আমি বাধ্য হয়ে থানায় অভিযোগ দিয়েছে। পুলিশ এসে ছুরিটি থানায় নিয়ে গেছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

এদিকে শিশুকন্যার গলায় ছুরি চালানোর ঘটনায় ক্ষুব্ধ ও হতাশ আহম্মদ আলীর প্রতিবেশীরাও। তাদেরই একজন ঈমান আলী (৩০) বলেন, ওই মহিলা খুবই বদমেজাজি। কিছুদিন আগে সামান্য ঘটনায় তার ননদকেও কামড় দিয়ে রক্তাক্ত করেছে।

তবে অভিযুক্ত মা আফছেরী বেগম বলেন, আমি আমার মেয়ের ওপর রাগ করে গলায় চাকু ধরেছিলাম শুধু। এ সময় আঁখি মাথা নাড়ায়। সে কারণে একটু কেটে যায়।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. আল মামুন বলেন, আঁখিকে চিকিৎসাসেবা দেয়া হচ্ছে। সে এখন মোটামুটি ভালো আছে।

হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম বলেন, ‘বাচ্চাটার মা ছুরির পিছনের অংশ গলায় ধরায় একটু ছিলা জখম হয়েছে বলে শুনেছি।

ঘটনাটা ছোট উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ওদের আমি বৃহস্পতিবার থানায় ডেকেছি।



পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত


DMCA.com Protection Status
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, বাড়ি ৭/১, রোড ১, পল্লবী, মিরপুর ১২, ঢাকা- ১২১৬
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: info@notunshomoy.com
Developed & Maintainance by i2soft