শনিবার, ১৯ জুন, 2০২1
নতুন সময় ডেস্ক
Published : Thursday, 10 June, 2021 at 7:14 PM
নৌকার মনোনয়ন ফরম কিনতে গিয়ে খালি হাতে ফিরলেন ডিপজল

নৌকার মনোনয়ন ফরম কিনতে গিয়ে খালি হাতে ফিরলেন ডিপজল

প্রয়াত সংসদ সদস্য আসলামুল হকের আসন ঢাকা-১৪ আসনের উপনির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন ফরম তুলতে গিয়ে খালি হাতে ফিরে গেছেন ঢাকাই সিনেমার দাপুটে অভিনেতা ও প্রযোজক মনোয়ার হোসেন ডিপজল।

রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে নৌকার মনোনয়ন ফরম তুলতে যান ডিপজল। এ সময় মিরপুরের মোল্লা পরিবারের সন্তান ও সাবেক বিএনপিনেতা এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ যান নৌকার ফরম কিনতে। কিন্তু সাবেক এই দুই বিএনপি নেতাকেই ফিরতে হয়েছে খালি হাতে।

আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান যুগান্তকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, তারা দলের কোনো পদ-পদবিতে আছেন বা দলীয় কর্মকাণ্ডে যুক্ত সেটা নিশ্চিত করতে পারেননি। তিনি আরও বলেন, একটি ক্রাইটেরিয়া (মানদণ্ড) মেনে ফরম বিক্রি করে আওয়ামী লীগ। সেই ক্রাইটেরিয়া পূরণ করতে না পারায় তাদের কাছে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করা হয়নি।

জানা গেছে, ঢাকা-১৪ আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থী হতে মনোনয়ন ফরম তোলার জন্য এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ মঙ্গলবার তার কর্মীদের নিয়ে আওয়ামী লীগের অফিসে আসেন। এ সময় তার কাছে আওয়ামী লীগের স্থানীয় কোনো পদ কিংবা প্রাথমিক সদস্যপদের কাগজপত্র চাওয়া হয়। তিনি কাগজ দেখাতে পারেননি। তাই তার কাছে দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি করা হয়নি। পরে তিনি চলে যান।

মঙ্গলবার দুপুরের দিকে কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে যান এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ। দুপুরের বিরতিতে ফরম বিক্রি বন্ধ থাকায় প্রায় পৌনে দুই ঘণ্টা অপেক্ষা শেষে ফরম বিক্রির কক্ষে যান এখলাস। কিন্তু মনোনয়ন ফরম কেনার কোনো শর্ত পূরণ করতে না পারায় এখলাসের কাছে মনোনয়নপত্র বিক্রি করা হয়নি। তার পক্ষ থেকে বারবার বোঝানোর চেষ্টা করে অনুরোধ করতে থাকেন কর্মী-সমর্থকেরা। এ সময় ফরম কেনার যোগ্যতার পুরো বিষয়টি তুলে ধরা হয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের পক্ষ থেকে। শেষ পর্যন্ত খালি হাতেই কার্যালয় ছাড়তে বাধ্য হন এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ ও তার কর্মী-সমর্থকেরা।

ওই সময় মনোনয়ন ফরম কেনার জন্য সেখানে অপেক্ষারত ছিলেন অভিনেতা ডিপজল। এখলাস উদ্দিন মোল্লাহর ফরম কিনতে না পারার বিষয়টি জানতে পেরে ডিপজল দ্রুত আওয়ামী লীগ অফিস ত্যাগ করেন। এ সময় ডিপজলের সঙ্গে ছিলেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান ও অভিনেতা মিশা সওদাগর।

মনোনয়ন ফরম কিনতে না পারার বিষয়ে এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ ও ডিপজলের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, ডিপজল ও এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ দু’জনই বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। সিনেমায় খল অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল একসময় বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। বিএনপির সমর্থন নিয়ে তিনি ১৯৯৪ সালে অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কমিশনার (কাউন্সিলর) পদে নির্বাচন করে জিতেছিলেন। বিএনপির রাজনীতি করে তাকে কারাবরণও করতে হয়েছে।

এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ ছিলেন ঢাকা মহানগর বিএনপির সাবেক নেতা। তিনি ১৯৯৬ সালে সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১১ আসনে বিএনপির মনোনয়নে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে পরাজিত হয়েছিলেন। তবে তার ভাই ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ আওয়ামী লীগের মনোনয়নে ২০০৮ সাল থেকে টানা তিনবার ঢাকা-১৬ আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।


পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত


DMCA.com Protection Status
সম্পাদক ও প্রকাশক: নাজমুল হক শ্যামল
দৈনিক নতুন সময়, বাড়ি ৭/১, রোড ১, পল্লবী, মিরপুর ১২, ঢাকা- ১২১৬
ফোন: ৫৮৩১২৮৮৮, ০১৯৯৪ ৬৬৬০৮৯, ইমেইল: info@notunshomoy.com
Developed & Maintainance by i2soft